০৩:৫৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নতুন প্রজন্মকে বৌদ্ধ দর্শন চর্চা ও গবেষণায় উৎসাহিত করতে হবে

সীবলী সংসদের উদ্যোগে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবে বক্তারা-

শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবে বক্তারা বলেছেন, বৌদ্ধ দর্শন মানুষের সামগ্রিক জীবনবোধে অনবদ্য ভূমিকা রেখেছে। সাহিত্য ও সংস্কৃতি কর্মকান্ডের মধ্যে দিয়ে নতুন প্রজন্মকে বৌদ্ধ দর্শন চর্চা ও গবেষণায় উৎসাহিত করতে হবে। সমাজের প্রচলিত ধারা পরিবর্তনে তরুন প্রজন্মের প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠন সীবলী সংসদের ভিন্নতর আয়োজন প্রশংসার দাবী রাখে। বক্তারা বলেন, শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমাকে ঘিরে এই প্রথম সাহিত্য মনস্ক, মনন ঋদ্ধ আয়োজন সমাজ পরিবর্তনের ইতিবাচক ধারা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবে। আগামীতে আরো বৃহত্তর পরিসরে আয়োজনের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

বুধবার (৩ মে) বিকেল ৫ টায় সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন সীবলী সংসদ চট্টগ্রামের উদ্যোগে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবে ছড়া-কবিতা পাঠ, নৃত্য, গান ও তারুণ্যের ভাবনা ও বই উৎসবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বক্তরা উপরোক্ত মন্তব্য করেন। নগরীর বৌদ্ধ মন্দির সড়কস্থ বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ঐতিহাসিক পূণ্যতীর্থ চট্টগ্রাম বৌদ্ধ বিহার চত্বরে সংগঠনের সিনিয়র সহসভাপতি ও শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক রনেশ চৌধুরী নন্তুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক স্বর্ণপদক প্রাপ্ত, দেশ বরেণ্য প্রবীণ শিক্ষাবিদ বিমল কান্তি বড়ুয়া। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন শিল্পকলায় পুরস্কার প্রাপ্ত বিশিষ্ট কবি ও নাট্য ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক সঞ্জীব বড়ুয়া। বিশেষ অতিথি ও লেখা পাঠে অংশ গ্রহণ করেন শিশু সাহিত্যিক, কবি- প্রাবন্ধিক শৈবাল বড়ুয়া, সাংবাদিক বিপুল বড়ুয়া, শিশু সাহিত্যিক উৎপলকান্তি বড়ুয়া, কবি ডাঃ কল্যাণ কুমার বড়ুয়া, কবি-প্রাবন্ধিক সুপ্রতীম বড়ুয়া ও কবি অরূপ কুমার বড়ুয়া।

লেখক,সংগঠক বিপ্লব বড়ুয়া’র পরিকল্পনা ও সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠেেনর সাধারণ সম্পাদক প্রকৌ. সৌরভ চৌধুরী, শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি বিকাশ কান্তি বড়ুয়া, তারুণ্যের ভাবনায় মেডিকেল শিক্ষার্থি সৌমেন বড়ুয়া, চুয়েট শিক্ষার্থি শ্রাবনী বড়ুয়া বুদ্ধ পূর্ণিমার অনুভূতি ব্যক্ত করেন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব উদাস বড়ুয়া দোলন। সহযোগী সঞ্চালক ছিলেন-সংস্কৃতি কর্মি বিজয় বড়ুয়া।

উৎসবে অন্যান্যের মধ্যে ছড়া-কবিতা পাঠে অংশনেন- ছড়াকার নান্টু বড়ুয়া, আবৃত্তিকার সমুদ্র টিটু, ছড়াকার রাসু বড়ুয়া, কবি তুষার কান্তি বড়ুয়া, ছড়াকার রঞ্জনা বড়ুয়া, কবি স্মরণিকা বড়ুয়া, অধ্যাপিকা শিউলি বড়ুয়া, সংস্কৃতি কর্মি বিজয় বড়ুয়া, তিলোত্তমা বড়ুয়া, সমৃদ্ধি বড়ুয়া শ্রীমা, সঞ্চিতা বড়ুয়া, ঐন্দ্রিলা বড়ুয়া, চাঁদনি বড়ুয়া, স্মিতা বড়ুয়া, বিক্রম বড়ুয়া, আরাধ্য বড়ুয়া মিষ্টি। খ্যাতিমান নৃত্যশিল্পী অনন্য বড়ুয়া’র পরিচালনায় নৃত্যালেখ্য পরিবেশন করেন উদ্দিপন বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক সংগঠনের নৃত্য দলের শিল্পীরা।

সংগীত পরিবেশন করেন-বেতার ও টিভি শিল্পী তাপস কুমার বড়ুয়া, শিল্পী অনুপ্রভা বড়ুয়া লীনা, শিল্পী তৃনা চৌধুরী, শিল্পী-সংগঠক সুদীপ বড়ুয়া, শিল্পী ডালিয়া বড়ুয়া, রিয়া বড়ুয়া, একুশে বড়ুয়া, সর্পিতা দে, অরুণাক্ষী বড়ুয়া, ধ্রুব বড়ুয়া, শুভ্রময় বড়ুয়া, অর্ণা চৌধুরী, অনিরুদ্ধ বড়ুয়া, জিনিয়া বড়ুয়া, মেখলা বড়ুয়া মেঘা, প্রান্তি বড়ুয়া বাবুই।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

সীবলী কো-অপারেটিভ সোসাইটি’র শুভ উদ্ভোধন

নতুন প্রজন্মকে বৌদ্ধ দর্শন চর্চা ও গবেষণায় উৎসাহিত করতে হবে

সীবলী সংসদের উদ্যোগে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবে বক্তারা-

আপডেট সময় ০২:৫৮:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মে ২০২৩

শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবে বক্তারা বলেছেন, বৌদ্ধ দর্শন মানুষের সামগ্রিক জীবনবোধে অনবদ্য ভূমিকা রেখেছে। সাহিত্য ও সংস্কৃতি কর্মকান্ডের মধ্যে দিয়ে নতুন প্রজন্মকে বৌদ্ধ দর্শন চর্চা ও গবেষণায় উৎসাহিত করতে হবে। সমাজের প্রচলিত ধারা পরিবর্তনে তরুন প্রজন্মের প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠন সীবলী সংসদের ভিন্নতর আয়োজন প্রশংসার দাবী রাখে। বক্তারা বলেন, শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমাকে ঘিরে এই প্রথম সাহিত্য মনস্ক, মনন ঋদ্ধ আয়োজন সমাজ পরিবর্তনের ইতিবাচক ধারা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবে। আগামীতে আরো বৃহত্তর পরিসরে আয়োজনের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

বুধবার (৩ মে) বিকেল ৫ টায় সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন সীবলী সংসদ চট্টগ্রামের উদ্যোগে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবে ছড়া-কবিতা পাঠ, নৃত্য, গান ও তারুণ্যের ভাবনা ও বই উৎসবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বক্তরা উপরোক্ত মন্তব্য করেন। নগরীর বৌদ্ধ মন্দির সড়কস্থ বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ঐতিহাসিক পূণ্যতীর্থ চট্টগ্রাম বৌদ্ধ বিহার চত্বরে সংগঠনের সিনিয়র সহসভাপতি ও শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক রনেশ চৌধুরী নন্তুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক স্বর্ণপদক প্রাপ্ত, দেশ বরেণ্য প্রবীণ শিক্ষাবিদ বিমল কান্তি বড়ুয়া। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন শিল্পকলায় পুরস্কার প্রাপ্ত বিশিষ্ট কবি ও নাট্য ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক সঞ্জীব বড়ুয়া। বিশেষ অতিথি ও লেখা পাঠে অংশ গ্রহণ করেন শিশু সাহিত্যিক, কবি- প্রাবন্ধিক শৈবাল বড়ুয়া, সাংবাদিক বিপুল বড়ুয়া, শিশু সাহিত্যিক উৎপলকান্তি বড়ুয়া, কবি ডাঃ কল্যাণ কুমার বড়ুয়া, কবি-প্রাবন্ধিক সুপ্রতীম বড়ুয়া ও কবি অরূপ কুমার বড়ুয়া।

লেখক,সংগঠক বিপ্লব বড়ুয়া’র পরিকল্পনা ও সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠেেনর সাধারণ সম্পাদক প্রকৌ. সৌরভ চৌধুরী, শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি বিকাশ কান্তি বড়ুয়া, তারুণ্যের ভাবনায় মেডিকেল শিক্ষার্থি সৌমেন বড়ুয়া, চুয়েট শিক্ষার্থি শ্রাবনী বড়ুয়া বুদ্ধ পূর্ণিমার অনুভূতি ব্যক্ত করেন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব উদাস বড়ুয়া দোলন। সহযোগী সঞ্চালক ছিলেন-সংস্কৃতি কর্মি বিজয় বড়ুয়া।

উৎসবে অন্যান্যের মধ্যে ছড়া-কবিতা পাঠে অংশনেন- ছড়াকার নান্টু বড়ুয়া, আবৃত্তিকার সমুদ্র টিটু, ছড়াকার রাসু বড়ুয়া, কবি তুষার কান্তি বড়ুয়া, ছড়াকার রঞ্জনা বড়ুয়া, কবি স্মরণিকা বড়ুয়া, অধ্যাপিকা শিউলি বড়ুয়া, সংস্কৃতি কর্মি বিজয় বড়ুয়া, তিলোত্তমা বড়ুয়া, সমৃদ্ধি বড়ুয়া শ্রীমা, সঞ্চিতা বড়ুয়া, ঐন্দ্রিলা বড়ুয়া, চাঁদনি বড়ুয়া, স্মিতা বড়ুয়া, বিক্রম বড়ুয়া, আরাধ্য বড়ুয়া মিষ্টি। খ্যাতিমান নৃত্যশিল্পী অনন্য বড়ুয়া’র পরিচালনায় নৃত্যালেখ্য পরিবেশন করেন উদ্দিপন বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক সংগঠনের নৃত্য দলের শিল্পীরা।

সংগীত পরিবেশন করেন-বেতার ও টিভি শিল্পী তাপস কুমার বড়ুয়া, শিল্পী অনুপ্রভা বড়ুয়া লীনা, শিল্পী তৃনা চৌধুরী, শিল্পী-সংগঠক সুদীপ বড়ুয়া, শিল্পী ডালিয়া বড়ুয়া, রিয়া বড়ুয়া, একুশে বড়ুয়া, সর্পিতা দে, অরুণাক্ষী বড়ুয়া, ধ্রুব বড়ুয়া, শুভ্রময় বড়ুয়া, অর্ণা চৌধুরী, অনিরুদ্ধ বড়ুয়া, জিনিয়া বড়ুয়া, মেখলা বড়ুয়া মেঘা, প্রান্তি বড়ুয়া বাবুই।