০৩:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লস এঞ্জেলেসের আর্ট গ্যালারি থেকে ১৭ কোটি টাকার প্রাচীন বুদ্ধ মূর্তি চুরি!

  • ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট সময় ০২:৫৯:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ৭৯৩ বার পড়া হয়েছে

লস এঞ্জেলেসের একটি আর্ট গ্যালারি থেকে ১ দশমিক ৫ মিলিয়ন (প্রায় ১৭ কোটি টাকা) ডলার মূল্যের একটি বিরল ও প্রাচীন জাপানি ব্রোঞ্জ বুদ্ধ মূর্তি চুরি গেছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, লস এঞ্জেলেসের পুলিশ বিভাগের মতে ১১৪ কেজি ওজনের ব্রোঞ্জ ভাস্কর্যটি গত ১৮ সেপ্টেম্বর বেভারলি গ্রোভের বারাকাত গ্যালারি থেকে ভোর ৩ টা ৪৫ মিনিটে চুরি হয়।

দুঃসাহসী এই চুরির ঘটনা সিসিটিভিতে ধরা পড়ে। সেখানে দেখা যায়, সন্দেহভাজন এক ব্যক্তি একটি ড্রাইভওয়ের গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করছে এবং ডলির সাহায্যে মূর্তিটিকে একটি ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছে। পুরো ঘটনাটি প্রায় ২৫ মিনিট ধরে চলতে থাকে। মূর্তিটি ভারী হওয়া সত্ত্বেও একজন চোর এটিকে একা বহত করতে সক্ষম হওয়ায় কর্তৃপক্ষ বেশ অবাকই হয়েছেন।

গ্যালারির মালিক ফয়েজ বারাকাত বলেছেন, তার বিশ্বাস চুরিটি পূর্বপরিকল্পিত ছিল। গ্যালারির পরিচালক পল হেন্ডারসন বলেন, আমার মনে হয় না বাজারে এর মতো আরও একটি আছে। এটি চার ফুট লম্বা। এটি অত্যাশ্চর্য কিছু একটা। এরকম কিছু হারিয়ে যাওয়া খুবই দুঃখজনক। তিনি জানান, চোরের পক্ষে এটি বিক্রি করা খুব কঠিন হবে। ১৬০৩-১৮৬৭ খ্রীষ্টাব্দে তৈরি করা মূর্তিটি জাপানের একটি মন্দিরে স্থাপন করার জন্য নির্মাণ করা হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়। এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ মামলাটি তদন্ত করছে।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

ড. এফ দীপংকর মহাথের’র মৃত্যুতে উদ্বেগ জানিয়েছেন পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশ

লস এঞ্জেলেসের আর্ট গ্যালারি থেকে ১৭ কোটি টাকার প্রাচীন বুদ্ধ মূর্তি চুরি!

আপডেট সময় ০২:৫৯:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

লস এঞ্জেলেসের একটি আর্ট গ্যালারি থেকে ১ দশমিক ৫ মিলিয়ন (প্রায় ১৭ কোটি টাকা) ডলার মূল্যের একটি বিরল ও প্রাচীন জাপানি ব্রোঞ্জ বুদ্ধ মূর্তি চুরি গেছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, লস এঞ্জেলেসের পুলিশ বিভাগের মতে ১১৪ কেজি ওজনের ব্রোঞ্জ ভাস্কর্যটি গত ১৮ সেপ্টেম্বর বেভারলি গ্রোভের বারাকাত গ্যালারি থেকে ভোর ৩ টা ৪৫ মিনিটে চুরি হয়।

দুঃসাহসী এই চুরির ঘটনা সিসিটিভিতে ধরা পড়ে। সেখানে দেখা যায়, সন্দেহভাজন এক ব্যক্তি একটি ড্রাইভওয়ের গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করছে এবং ডলির সাহায্যে মূর্তিটিকে একটি ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছে। পুরো ঘটনাটি প্রায় ২৫ মিনিট ধরে চলতে থাকে। মূর্তিটি ভারী হওয়া সত্ত্বেও একজন চোর এটিকে একা বহত করতে সক্ষম হওয়ায় কর্তৃপক্ষ বেশ অবাকই হয়েছেন।

গ্যালারির মালিক ফয়েজ বারাকাত বলেছেন, তার বিশ্বাস চুরিটি পূর্বপরিকল্পিত ছিল। গ্যালারির পরিচালক পল হেন্ডারসন বলেন, আমার মনে হয় না বাজারে এর মতো আরও একটি আছে। এটি চার ফুট লম্বা। এটি অত্যাশ্চর্য কিছু একটা। এরকম কিছু হারিয়ে যাওয়া খুবই দুঃখজনক। তিনি জানান, চোরের পক্ষে এটি বিক্রি করা খুব কঠিন হবে। ১৬০৩-১৮৬৭ খ্রীষ্টাব্দে তৈরি করা মূর্তিটি জাপানের একটি মন্দিরে স্থাপন করার জন্য নির্মাণ করা হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়। এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ মামলাটি তদন্ত করছে।