০৬:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারত বিশ্বকে যুদ্ধ দেয়নি বুদ্ধ দিয়েছে, বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

আজ (২০ এপ্রিল)  বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে শুরু হল গ্লোবাল বুদ্ধিস্ট সামিট ৷ এদিন ওই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ সেখানে তিনি জানান, ভারত বিশ্বকে যুদ্ধ দেয়নি বুদ্ধ দিয়েছে ৷

আধুনিক বিশ্বে যত সমস্যা রয়েছে, তার সবই বৌদ্ধ শিক্ষার মাধ্যমে সমাধান করা যেতে পারে । এমনটাই মনে করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ বৃহস্পতিবার তিনি তাঁর এই মত প্রকাশও করেছেন ৷ এদিন নয়াদিল্লিতে গ্লোবাল বুদ্ধিস্ট সামিটের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী মোদি । সেখানেই তিনি নিজের এই মত প্রকাশ করেন ৷

এদিন আধুনিক বিশ্বে বৌদ্ধধর্মের প্রাসঙ্গিকতা সম্পর্কে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ সেখানে তিনি বলেন, ‘‘বুদ্ধের পথই ভবিষ্যৎ ও স্থায়িত্বের পথ ।’’ বিশ্ব বর্তমানে যে যুদ্ধ ও অস্থিরতায় ভুগছে, সেই বিষয়টিও এদিনের সম্মেলনে ভাষণ দিতে গিয়ে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী ৷ তিনি বলেন, ‘‘বিশ্ব বর্তমানে যুদ্ধ ও অস্থিরতায় ভুগছে ৷ অথচ বুদ্ধ কয়েক শতাব্দী আগে এই সমস্যার সমাধান করে দিয়েছিলেন ।’’ সারা বিশ্বে বিরাজমান দ্বন্দ্বের কথা উল্লেখ করে মোদি বলেন, ‘‘ভারত বিশ্বকে যুদ্ধ দেয়নি, বুদ্ধ দিয়েছে ।’’

এদিন দিল্লির একটি হোটেল সকাল ১০টায় ওই সম্মেলন শুরু হয় । আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশনের বা আইবিসি-র সহযোগিতায় সংস্কৃতি মন্ত্রকের আয়োজনে দু’দিনের এই সম্মেলন হচ্ছে ৷ এখানে প্রধান বক্তা হিসেবে রয়েছেন প্রফেসর রবার্ট থারম্যান, পদ্মশ্রী প্রাপক ও ভিয়েতনাম বৌদ্ধ সংঘের ডেপুটি প্যাট্রিয়ার্ক থিচ ট্রাই কোয়াং । সেখানেই আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বক্তৃতা করেন ৷

এই সম্মেলন নিয়ে আগেই প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে বিবৃতি দেওয়া হয় ৷ সেই বিবৃতি অনুসারে, এই সম্মেলনে বিশ্বের বৌদ্ধ নেতৃত্ব ও কৃতিদের বৌদ্ধধর্ম ও বিশ্বের উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ৷ বর্তমান বিশ্বে কীভাবে বৌদ্ধধর্মের মূল ভাবনাগুলিকে অনুপ্রেরণা জোগাতে পারে ও পথ দেখাতে পারে, তার বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখা হবে ৷

এই সম্মেলনে আলোচনার জন্য চারটি বিষয় ঠিক হয়েছে ৷ সেগুলি হল – বৌদ্ধধর্ম ও শান্তি, বৌদ্ধধর্ম ও পরিবেশগত সংকট এবং স্বাস্থ্য ও স্থায়িত্ব, নালন্দা বৌদ্ধ ঐতিহ্য সংরক্ষণ, বৌদ্ধধর্মের তীর্থযাত্রা এবং জীবন্ত ঐতিহ্য ও বুদ্ধ অবশেষ: দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব ও পূর্ব এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে ভারতের শতাব্দী-প্রাচীন সাংস্কৃতিক সংযোগের একটি স্থিতিস্থাপক ভিত্তি ।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

বুদ্ধ পূর্ণিমায় কোন ধরনের নিরাপত্তা ঝুঁকি নেই : ডিএমপি কমিশনার

ভারত বিশ্বকে যুদ্ধ দেয়নি বুদ্ধ দিয়েছে, বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

আপডেট সময় ১০:৪৩:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৩

আজ (২০ এপ্রিল)  বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে শুরু হল গ্লোবাল বুদ্ধিস্ট সামিট ৷ এদিন ওই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ সেখানে তিনি জানান, ভারত বিশ্বকে যুদ্ধ দেয়নি বুদ্ধ দিয়েছে ৷

আধুনিক বিশ্বে যত সমস্যা রয়েছে, তার সবই বৌদ্ধ শিক্ষার মাধ্যমে সমাধান করা যেতে পারে । এমনটাই মনে করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ বৃহস্পতিবার তিনি তাঁর এই মত প্রকাশও করেছেন ৷ এদিন নয়াদিল্লিতে গ্লোবাল বুদ্ধিস্ট সামিটের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী মোদি । সেখানেই তিনি নিজের এই মত প্রকাশ করেন ৷

এদিন আধুনিক বিশ্বে বৌদ্ধধর্মের প্রাসঙ্গিকতা সম্পর্কে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷ সেখানে তিনি বলেন, ‘‘বুদ্ধের পথই ভবিষ্যৎ ও স্থায়িত্বের পথ ।’’ বিশ্ব বর্তমানে যে যুদ্ধ ও অস্থিরতায় ভুগছে, সেই বিষয়টিও এদিনের সম্মেলনে ভাষণ দিতে গিয়ে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী ৷ তিনি বলেন, ‘‘বিশ্ব বর্তমানে যুদ্ধ ও অস্থিরতায় ভুগছে ৷ অথচ বুদ্ধ কয়েক শতাব্দী আগে এই সমস্যার সমাধান করে দিয়েছিলেন ।’’ সারা বিশ্বে বিরাজমান দ্বন্দ্বের কথা উল্লেখ করে মোদি বলেন, ‘‘ভারত বিশ্বকে যুদ্ধ দেয়নি, বুদ্ধ দিয়েছে ।’’

এদিন দিল্লির একটি হোটেল সকাল ১০টায় ওই সম্মেলন শুরু হয় । আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশনের বা আইবিসি-র সহযোগিতায় সংস্কৃতি মন্ত্রকের আয়োজনে দু’দিনের এই সম্মেলন হচ্ছে ৷ এখানে প্রধান বক্তা হিসেবে রয়েছেন প্রফেসর রবার্ট থারম্যান, পদ্মশ্রী প্রাপক ও ভিয়েতনাম বৌদ্ধ সংঘের ডেপুটি প্যাট্রিয়ার্ক থিচ ট্রাই কোয়াং । সেখানেই আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বক্তৃতা করেন ৷

এই সম্মেলন নিয়ে আগেই প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে বিবৃতি দেওয়া হয় ৷ সেই বিবৃতি অনুসারে, এই সম্মেলনে বিশ্বের বৌদ্ধ নেতৃত্ব ও কৃতিদের বৌদ্ধধর্ম ও বিশ্বের উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ৷ বর্তমান বিশ্বে কীভাবে বৌদ্ধধর্মের মূল ভাবনাগুলিকে অনুপ্রেরণা জোগাতে পারে ও পথ দেখাতে পারে, তার বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখা হবে ৷

এই সম্মেলনে আলোচনার জন্য চারটি বিষয় ঠিক হয়েছে ৷ সেগুলি হল – বৌদ্ধধর্ম ও শান্তি, বৌদ্ধধর্ম ও পরিবেশগত সংকট এবং স্বাস্থ্য ও স্থায়িত্ব, নালন্দা বৌদ্ধ ঐতিহ্য সংরক্ষণ, বৌদ্ধধর্মের তীর্থযাত্রা এবং জীবন্ত ঐতিহ্য ও বুদ্ধ অবশেষ: দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব ও পূর্ব এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে ভারতের শতাব্দী-প্রাচীন সাংস্কৃতিক সংযোগের একটি স্থিতিস্থাপক ভিত্তি ।