০৩:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতীয় উপ- সংঘরাজ ধর্মদর্শী মহাস্থবির আর নেই

  • ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট সময় ১২:২০:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০২৩
  • ৭৫০ বার পড়া হয়েছে

ভারতীয় সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ ভদন্ত ধর্মদর্শী মহাস্থবির আর নেই।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার ২৩ সকালে নিজ বিহারে প্রয়াত হন।

জানা যায়, তাঁর জন্মস্থান জোয়ারা খান-খানাবাদ (উত্তর জোয়ারা) পটিয়া চট্টগ্রাম। তাঁর বাবার নাম স্বর্গীয় যামিনী রঞ্জন বড়ুয়া । প্রয়াত ধর্মদর্শী ভান্তের শ্রমনের গুরু ছিলেন খান খানাবাদ পঞ্চরত্ন বুদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ – ধর্মরশ্মি মহাস্থবির। তিনি রাউজান থানার বিনাজুড়ি, (শ্মশান বিহার ) গহিরা অঙ্গুরগোনা জেতবন বুদ্ধ বিহারের সুদীর্ঘকাল অবস্থান করেছিলেন। পরবর্তী সময়ে (পঃ বঃ) দওপুকুর জেতবন বিহারের বিহারাধ‍্যক্ষ,প্রয়াত সংঘনায়ক এবং ভারতের রাজ্যসভার M.P. ধর্মবীরিয় মহাস্থবির কতৃক প্রতিষ্ঠিত দত্তপুকুরে কৃপাশরণ বুদ্ধিস্ট মিশনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন ও ইছাপুর – মানিকতলা তথাগত বিহারে অবস্থান করেছিলেন। আজ সকালবেলায় বারাসাত নিজস্ব প্রতিষ্ঠান- সপ্তপর্ণী বুদ্ধ বিহারে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি ভারতীয় সংঘরাজ মহাসভার (পঃ বঃ ) উপ-সংঘরাজ এবং সভাপতি ছিলেন। তিনি অনেক গ্রন্থ লিখেছেন।

সুত্র:(ভদন্ত বিনয়শ্রী ভিক্ষু)

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

ড. এফ দীপংকর মহাথের’র মৃত্যুতে উদ্বেগ জানিয়েছেন পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশ

ভারতীয় উপ- সংঘরাজ ধর্মদর্শী মহাস্থবির আর নেই

আপডেট সময় ১২:২০:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০২৩

ভারতীয় সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপ-সংঘরাজ ভদন্ত ধর্মদর্শী মহাস্থবির আর নেই।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার ২৩ সকালে নিজ বিহারে প্রয়াত হন।

জানা যায়, তাঁর জন্মস্থান জোয়ারা খান-খানাবাদ (উত্তর জোয়ারা) পটিয়া চট্টগ্রাম। তাঁর বাবার নাম স্বর্গীয় যামিনী রঞ্জন বড়ুয়া । প্রয়াত ধর্মদর্শী ভান্তের শ্রমনের গুরু ছিলেন খান খানাবাদ পঞ্চরত্ন বুদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ – ধর্মরশ্মি মহাস্থবির। তিনি রাউজান থানার বিনাজুড়ি, (শ্মশান বিহার ) গহিরা অঙ্গুরগোনা জেতবন বুদ্ধ বিহারের সুদীর্ঘকাল অবস্থান করেছিলেন। পরবর্তী সময়ে (পঃ বঃ) দওপুকুর জেতবন বিহারের বিহারাধ‍্যক্ষ,প্রয়াত সংঘনায়ক এবং ভারতের রাজ্যসভার M.P. ধর্মবীরিয় মহাস্থবির কতৃক প্রতিষ্ঠিত দত্তপুকুরে কৃপাশরণ বুদ্ধিস্ট মিশনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন ও ইছাপুর – মানিকতলা তথাগত বিহারে অবস্থান করেছিলেন। আজ সকালবেলায় বারাসাত নিজস্ব প্রতিষ্ঠান- সপ্তপর্ণী বুদ্ধ বিহারে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি ভারতীয় সংঘরাজ মহাসভার (পঃ বঃ ) উপ-সংঘরাজ এবং সভাপতি ছিলেন। তিনি অনেক গ্রন্থ লিখেছেন।

সুত্র:(ভদন্ত বিনয়শ্রী ভিক্ষু)