০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২০-২১এপ্রিল প্রথম বৈশ্বিক বৌদ্ধ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে নয়াদিল্লিতে

আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশন (আইবিসি) ২০-২১ এপ্রিল দিল্লিতে প্রথম বিশ্ব বৌদ্ধ সম্মেলনের আয়োজন করতে যাচ্ছে। এই সম্মেলনের উদ্দেশ্য হল বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে মানবতার মুখোমুখি হওয়া চ্যালেঞ্জগুলির সমাধান বিবেচনা করা।

আইবিসির সাধারণ সম্পাদক ভান্তে ডঃ ধাম্পিয়া বলেন, ভগবান বুদ্ধের শিক্ষায় বিশ্বের অনেক সমস্যার সমাধান রয়েছে। আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশনের প্রচেষ্টা হল এই বৈশ্বিক সমস্যাগুলিকে প্রতিফলিত করার জন্য বৌদ্ধ ধর্মের একটি দলকে একত্রিত করা এবং তাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টার জন্য অনুপ্রাণিত করা।

তিনি জানান, দিল্লির অশোক হোটেলে ২০ এবং ২১ এপ্রিল এ বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেছিলেন যে পৃথিবীতে দুটি চরম দৃষ্টিভঙ্গির মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে, যার সমাধান বুদ্ধের মধ্যম পথ এবং ভারসাম্যের মধ্যে রয়েছে। এসব চরম চিন্তা একদিকে মানুষকে সংগ্রামের দিকে আকৃষ্ট করে অন্যদিকে ভোগের দিকে।

আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশনের মহাপরিচালক অভিজিৎ হালদার বলেন, বর্তমানে বিশ্ব যুদ্ধ, হিংসা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং জলবায়ু পরিবর্তনের মতো বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছে। এই মানবসৃষ্ট সমস্যার সমাধান একমাত্র মানুষই করতে পারে। এ ব্যাপারে সারা বিশ্বের সেরা বৌদ্ধ চিন্তাবিদদের এক প্লাটফর্মে এনে সমাধান খোঁজার চেষ্টা চলছে। এর উদ্দেশ্য বিশ্ববাসীর কাছে বার্তা পৌঁছে দেওয়া।

তিনি জানান, বিশ্বের ৩০টি দেশের ১৮০ জন প্রতিযোগী এই সম্মেলনে যোগ দিতে যাচ্ছেন। এছাড়া সারাদেশের চিন্তাবিদ ও বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতারা এতে অংশ নেবেন। এটি মেক্সিকো এবং ব্রাজিলের মতো দূরবর্তী দেশগুলির অংশগ্রহণকারীদেরও অন্তর্ভুক্ত করবে।

সম্মেলনের পর আলোচনার সারাংশ সম্বলিত একটি পুস্তিকা প্রকাশ করা হবে। সম্মেলনের থিম ‘দর্শন থেকে প্র্যাক্সিস থেকে সমসাময়িক চ্যালেঞ্জের প্রতিক্রিয়া’। বিশ্বব্যাপী বিশিষ্ট পণ্ডিত, সংঘ নেতা এবং ধর্ম অনুসারীরা বৈশ্বিক সমস্যা নিয়ে আলোচনা করবেন এবং বৌদ্ধ ধর্মের দৃষ্টিকোণ থেকে সার্বজনীন মূল্যবোধ প্রচারের চেষ্টা করবেন।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

২০-২১এপ্রিল প্রথম বৈশ্বিক বৌদ্ধ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে নয়াদিল্লিতে

আপডেট সময় ০১:১৭:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ এপ্রিল ২০২৩

আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশন (আইবিসি) ২০-২১ এপ্রিল দিল্লিতে প্রথম বিশ্ব বৌদ্ধ সম্মেলনের আয়োজন করতে যাচ্ছে। এই সম্মেলনের উদ্দেশ্য হল বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে মানবতার মুখোমুখি হওয়া চ্যালেঞ্জগুলির সমাধান বিবেচনা করা।

আইবিসির সাধারণ সম্পাদক ভান্তে ডঃ ধাম্পিয়া বলেন, ভগবান বুদ্ধের শিক্ষায় বিশ্বের অনেক সমস্যার সমাধান রয়েছে। আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশনের প্রচেষ্টা হল এই বৈশ্বিক সমস্যাগুলিকে প্রতিফলিত করার জন্য বৌদ্ধ ধর্মের একটি দলকে একত্রিত করা এবং তাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টার জন্য অনুপ্রাণিত করা।

তিনি জানান, দিল্লির অশোক হোটেলে ২০ এবং ২১ এপ্রিল এ বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বলেছিলেন যে পৃথিবীতে দুটি চরম দৃষ্টিভঙ্গির মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে, যার সমাধান বুদ্ধের মধ্যম পথ এবং ভারসাম্যের মধ্যে রয়েছে। এসব চরম চিন্তা একদিকে মানুষকে সংগ্রামের দিকে আকৃষ্ট করে অন্যদিকে ভোগের দিকে।

আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ কনফেডারেশনের মহাপরিচালক অভিজিৎ হালদার বলেন, বর্তমানে বিশ্ব যুদ্ধ, হিংসা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং জলবায়ু পরিবর্তনের মতো বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছে। এই মানবসৃষ্ট সমস্যার সমাধান একমাত্র মানুষই করতে পারে। এ ব্যাপারে সারা বিশ্বের সেরা বৌদ্ধ চিন্তাবিদদের এক প্লাটফর্মে এনে সমাধান খোঁজার চেষ্টা চলছে। এর উদ্দেশ্য বিশ্ববাসীর কাছে বার্তা পৌঁছে দেওয়া।

তিনি জানান, বিশ্বের ৩০টি দেশের ১৮০ জন প্রতিযোগী এই সম্মেলনে যোগ দিতে যাচ্ছেন। এছাড়া সারাদেশের চিন্তাবিদ ও বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতারা এতে অংশ নেবেন। এটি মেক্সিকো এবং ব্রাজিলের মতো দূরবর্তী দেশগুলির অংশগ্রহণকারীদেরও অন্তর্ভুক্ত করবে।

সম্মেলনের পর আলোচনার সারাংশ সম্বলিত একটি পুস্তিকা প্রকাশ করা হবে। সম্মেলনের থিম ‘দর্শন থেকে প্র্যাক্সিস থেকে সমসাময়িক চ্যালেঞ্জের প্রতিক্রিয়া’। বিশ্বব্যাপী বিশিষ্ট পণ্ডিত, সংঘ নেতা এবং ধর্ম অনুসারীরা বৈশ্বিক সমস্যা নিয়ে আলোচনা করবেন এবং বৌদ্ধ ধর্মের দৃষ্টিকোণ থেকে সার্বজনীন মূল্যবোধ প্রচারের চেষ্টা করবেন।