০২:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উপসংঘরাজ ড. শীলানন্দ মহাথের’র অন্ত‍্যেষ্টিক্রিয়া আগামীকাল শুরু

বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপসংঘরাজ শ্রুতিধর প্রয়াত ড. শীলানন্দ মহাথের’র ২দিনব্যাপী জাতীয় অন্ত‍্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান আগামীকাল  ২৮  মার্চ  বৃহস্পতিবার  রাউজান বিমলানন্দ কেন্দ্রীয় বিহারে শুরু  হবে। তথাগত অনলাইন অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সকালে অষ্টপরিষ্কার সহ সংঘদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতি সদ্ধর্মজ্যোতি ভদন্ত সুনন্দ মহাথের’র সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি থাকবেন সংঘনায়ক প্রিয়শীলি অধ্যাপক বনশ্রী মহাথের, প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন উপসংঘনায়ক সদ্ধর্মরশ্মি ভদন্ত রতনশ্রী মহাথের, মুখ্য আলোচক থাকবেন  বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার সিনিয়র সহ- সভাপতি সদ্ধর্মরত্ন ভদন্ত জ্ঞানানন্দ মহাথের,উদ্বোধক থাকবেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের সভাপতি ভদন্ত বুদ্ধপ্রিয় মহাথের, প্রধান সদ্ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব প্রজ্ঞাবারিধি ভদন্ত অধ্যাপক সুমেধানন্দ মহাথের, বিশেষ সদ্ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন খৈয়াখালী ধর্মবিজয়ারাম বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত উপঞঞা চক্ক মহাথের। বিশেষ জ্ঞাতি থাকবেন রাজগুরু ভদন্ত অভয়ানন্দ মহাথের, মৈত্রীবারিধি ভদন্ত পরমানন্দ মহাথের, সদ্ধর্মশ্রী বিপসসী মহাথের, বিদর্শনাচার্য ভদন্ত নন্দবংশ মহাথের, অধ্যাপক ড. উপানন্দ মহাথের, ভদন্ত ধর্মানন্দ মহাথের।

বিকাল ৩ টায় উপসংঘরাজ শ্রুতিধর ড. শীলানন্দ মহাথেরর পবিত্র শবদেহ বুদ্ধ সংকীর্তন সহকারে রাউজান গ্রাম পরিক্রমা অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার (১৫মার্চ) সকালে অষ্টপরিষ্কারসহ সংঘদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপসংঘরাজ সদ্ধর্মবারিধি ভদন্ত প্রিয়দর্শী মহাথের’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ভারতীয় সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সংঘরাজ ভদন্ত রতনজ্যোতি মহাথের,প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন উপসংঘরাজ শাসনভাস্কর শাসনপ্রিয় মহাথের, উদ্বোধক থাকবেন সংঘরাজ ভিক্ষু মহামন্ডলের সভাপতি কর্মদূত জিনালংকার মহাথের, মুখ্য আলোচক থাকবেন মিরসরাই সীতাকুন্ড বৌদ্ধ ভিক্ষু সমিতির সভাপতি ড. ধর্মকীর্তি মহাথের, প্রধান ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার প্রাক্তন মহাসচিব সদ্ধর্মকোবিদ এস, লোকজিৎ মহাথের,

দুপুর ২ টায় স্মৃতিচারণসহ সদ্ধর্মসভায় আশীর্বাদক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সংঘরাজ শাসনশোভন ড. জ্ঞানশ্রী মহাথের। উপসংঘরাজ শাসনস্তম্ব ভদন্ত ধর্মপ্রিয় মহাথেরর সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম-৬ আসনের সংসদ সদস্য ও রেলপথ মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ,প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতি উপ- সংঘরাজ জ্ঞাননিধি ভদন্ত বুদ্ধরক্ষিত মহাথের, উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষু, মুখ্য আলোচক থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অতীশ দীপংকর হলের প্রভোষ্ট অধ্যাপক ড. জ্ঞানরত্ন মহাথের, প্রধান ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার মহাসচিব ড. সংঘপ্রিয় মহাথের। বিশেষ জ্ঞাতি থাকবেন উপসংঘরাজ কর্মযোগী ভদন্ত শীলরক্ষিত মহাথের,থাইল্যান্ডের ধর্মকায়া ফাউন্ডেশনের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পারমহা ওরাওয়াট কেটলি মহাথের ,লোহাগাড়া ভিক্ষু সমিতির সভাপতি বিমুক্তিবারিধি ভদন্ত রতনপ্রিয় মহাথের ,রাংগুনিয়া ভিক্ষু সমিতির সভাপতি ভদন্ত ধর্মসেন মহাথের, সদ্ধর্মধারি বিনয়পাল মহাথের, শিক্ষাবিদ ভদন্ত রাহুলপ্রিয় মহাথের, প্রজ্ঞাসারথী প্রজ্ঞানন্দ মহাথের, ভদন্ত সুমঙ্গল মহাথের, ভারত সিদ্ধার্থ ইউনাইটেড সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার মিশনের সাধারন সম্পাদক ড. বুদ্ধপ্রিয় মহাথের।

উল্লেখ্য , উপসংঘরাজ শ্রুতিধর প্রয়াত ড. শীলানন্দ মহাথের গত  ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার  ভোর ০৪.১০ মিনিটে  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। তিনি দেশে ও বিদেশে অসংখ্য শিষ্য-প্রশিষ্য, ভক্ত ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।।

তিনি ১৯৩০ সালের ২৩ মে পশ্চিম রাউজানস্থ কুল চন্দ্র সরকার বাড়িতে জন্ম গ্রহণ করেন। গৃহী অবস্থায় তার নাম ছিল প্রিয়দর্শী বড়ুয়া, পিতা- প্রয়াত চন্দ্রশেখর বড়ুয়া, মাতা- প্রয়াতা বিকিরণ শশী বড়ুয়া।

ড. শীলানন্দ মহাথের ১৯৫০ সালের ৩০ অক্টোবর প্রব্রজ্যা লাভ করেন। তিনি ১৯৮৭ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি মহাথের উপাধি প্রাপ্ত হয়ে বর্ণাঢ্য ভিক্ষু জীবনে ২০১৬ সালে উপ-সংঘরাজ উপাধিতে ভূষিত হন। তাকে ২০১৮ সালের ১৩ অক্টোবর থাইল্যান্ডের ইন্টারনেশনাল ইউনিভার্সিটি অফ মরালিটি, ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রী প্রধান করা হয়। ১৯৫৫ সালে ঐতিয্যবাহী রাউজান আনন্দ বিহারে বিহারাধিপতি হয়ে ১৯৫৭ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা ৬১ বছর রাউজান আনন্দ বিহারে অবস্থান করেন। ২০১৭ সালের পর থেকে রাউজান বিমলানন্দ কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ দায়িত্ব পালন করেন।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

ড. এফ দীপংকর মহাথের’র মৃত্যুতে উদ্বেগ জানিয়েছেন পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশ

উপসংঘরাজ ড. শীলানন্দ মহাথের’র অন্ত‍্যেষ্টিক্রিয়া আগামীকাল শুরু

আপডেট সময় ১১:৫৯:৩০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপসংঘরাজ শ্রুতিধর প্রয়াত ড. শীলানন্দ মহাথের’র ২দিনব্যাপী জাতীয় অন্ত‍্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান আগামীকাল  ২৮  মার্চ  বৃহস্পতিবার  রাউজান বিমলানন্দ কেন্দ্রীয় বিহারে শুরু  হবে। তথাগত অনলাইন অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সকালে অষ্টপরিষ্কার সহ সংঘদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতি সদ্ধর্মজ্যোতি ভদন্ত সুনন্দ মহাথের’র সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি থাকবেন সংঘনায়ক প্রিয়শীলি অধ্যাপক বনশ্রী মহাথের, প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন উপসংঘনায়ক সদ্ধর্মরশ্মি ভদন্ত রতনশ্রী মহাথের, মুখ্য আলোচক থাকবেন  বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার সিনিয়র সহ- সভাপতি সদ্ধর্মরত্ন ভদন্ত জ্ঞানানন্দ মহাথের,উদ্বোধক থাকবেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের সভাপতি ভদন্ত বুদ্ধপ্রিয় মহাথের, প্রধান সদ্ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব প্রজ্ঞাবারিধি ভদন্ত অধ্যাপক সুমেধানন্দ মহাথের, বিশেষ সদ্ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন খৈয়াখালী ধর্মবিজয়ারাম বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত উপঞঞা চক্ক মহাথের। বিশেষ জ্ঞাতি থাকবেন রাজগুরু ভদন্ত অভয়ানন্দ মহাথের, মৈত্রীবারিধি ভদন্ত পরমানন্দ মহাথের, সদ্ধর্মশ্রী বিপসসী মহাথের, বিদর্শনাচার্য ভদন্ত নন্দবংশ মহাথের, অধ্যাপক ড. উপানন্দ মহাথের, ভদন্ত ধর্মানন্দ মহাথের।

বিকাল ৩ টায় উপসংঘরাজ শ্রুতিধর ড. শীলানন্দ মহাথেরর পবিত্র শবদেহ বুদ্ধ সংকীর্তন সহকারে রাউজান গ্রাম পরিক্রমা অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার (১৫মার্চ) সকালে অষ্টপরিষ্কারসহ সংঘদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার উপসংঘরাজ সদ্ধর্মবারিধি ভদন্ত প্রিয়দর্শী মহাথের’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ভারতীয় সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সংঘরাজ ভদন্ত রতনজ্যোতি মহাথের,প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন উপসংঘরাজ শাসনভাস্কর শাসনপ্রিয় মহাথের, উদ্বোধক থাকবেন সংঘরাজ ভিক্ষু মহামন্ডলের সভাপতি কর্মদূত জিনালংকার মহাথের, মুখ্য আলোচক থাকবেন মিরসরাই সীতাকুন্ড বৌদ্ধ ভিক্ষু সমিতির সভাপতি ড. ধর্মকীর্তি মহাথের, প্রধান ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার প্রাক্তন মহাসচিব সদ্ধর্মকোবিদ এস, লোকজিৎ মহাথের,

দুপুর ২ টায় স্মৃতিচারণসহ সদ্ধর্মসভায় আশীর্বাদক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সংঘরাজ শাসনশোভন ড. জ্ঞানশ্রী মহাথের। উপসংঘরাজ শাসনস্তম্ব ভদন্ত ধর্মপ্রিয় মহাথেরর সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম-৬ আসনের সংসদ সদস্য ও রেলপথ মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ,প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতি উপ- সংঘরাজ জ্ঞাননিধি ভদন্ত বুদ্ধরক্ষিত মহাথের, উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষু, মুখ্য আলোচক থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অতীশ দীপংকর হলের প্রভোষ্ট অধ্যাপক ড. জ্ঞানরত্ন মহাথের, প্রধান ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার মহাসচিব ড. সংঘপ্রিয় মহাথের। বিশেষ জ্ঞাতি থাকবেন উপসংঘরাজ কর্মযোগী ভদন্ত শীলরক্ষিত মহাথের,থাইল্যান্ডের ধর্মকায়া ফাউন্ডেশনের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পারমহা ওরাওয়াট কেটলি মহাথের ,লোহাগাড়া ভিক্ষু সমিতির সভাপতি বিমুক্তিবারিধি ভদন্ত রতনপ্রিয় মহাথের ,রাংগুনিয়া ভিক্ষু সমিতির সভাপতি ভদন্ত ধর্মসেন মহাথের, সদ্ধর্মধারি বিনয়পাল মহাথের, শিক্ষাবিদ ভদন্ত রাহুলপ্রিয় মহাথের, প্রজ্ঞাসারথী প্রজ্ঞানন্দ মহাথের, ভদন্ত সুমঙ্গল মহাথের, ভারত সিদ্ধার্থ ইউনাইটেড সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার মিশনের সাধারন সম্পাদক ড. বুদ্ধপ্রিয় মহাথের।

উল্লেখ্য , উপসংঘরাজ শ্রুতিধর প্রয়াত ড. শীলানন্দ মহাথের গত  ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার  ভোর ০৪.১০ মিনিটে  শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। তিনি দেশে ও বিদেশে অসংখ্য শিষ্য-প্রশিষ্য, ভক্ত ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।।

তিনি ১৯৩০ সালের ২৩ মে পশ্চিম রাউজানস্থ কুল চন্দ্র সরকার বাড়িতে জন্ম গ্রহণ করেন। গৃহী অবস্থায় তার নাম ছিল প্রিয়দর্শী বড়ুয়া, পিতা- প্রয়াত চন্দ্রশেখর বড়ুয়া, মাতা- প্রয়াতা বিকিরণ শশী বড়ুয়া।

ড. শীলানন্দ মহাথের ১৯৫০ সালের ৩০ অক্টোবর প্রব্রজ্যা লাভ করেন। তিনি ১৯৮৭ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি মহাথের উপাধি প্রাপ্ত হয়ে বর্ণাঢ্য ভিক্ষু জীবনে ২০১৬ সালে উপ-সংঘরাজ উপাধিতে ভূষিত হন। তাকে ২০১৮ সালের ১৩ অক্টোবর থাইল্যান্ডের ইন্টারনেশনাল ইউনিভার্সিটি অফ মরালিটি, ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রী প্রধান করা হয়। ১৯৫৫ সালে ঐতিয্যবাহী রাউজান আনন্দ বিহারে বিহারাধিপতি হয়ে ১৯৫৭ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত টানা ৬১ বছর রাউজান আনন্দ বিহারে অবস্থান করেন। ২০১৭ সালের পর থেকে রাউজান বিমলানন্দ কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ দায়িত্ব পালন করেন।