০৪:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষুকে হেনস্থার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

  • ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট সময় ০৭:১৫:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪
  • ৬৫০ বার পড়া হয়েছে

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) পালি বিভাগের অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষুকে হেনস্থার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (১৩ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। তাদের কর্মসূচিতে একাত্মতা পোষণ করেন বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার সমিতি, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, পালি বিভাগের শিক্ষার্থী ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় বৌদ্ধ ছাত্র পরিষদ।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক পার্থ প্রতিম বড়ুয়া। সঞ্চালনায় ছিলেন পালি বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী নিরোধানন্দ ভিক্ষু।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী অন্বেশ চাকমা বলেন, তিনি শিক্ষার জন্য কাজ করছেন এবং করে যাবেন। এমন ব্যক্তির সঙ্গে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।  ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। এ ধরনের সম্মানিত ব্যক্তিদের সঙ্গে যাতে এরকম গর্হিত কাজের পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে ব্যবস্থা নিতে হবে।

পালি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রিয়া বড়ুয়া বলেন, একজন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে কীভাবে সম্মান করতে হয় সেটা আমরা নিশ্চয় জানি। তিনি শুধু ধর্মীয় গুরুই নয়, তার মতো গুণী মানুষ কমই জন্মায়। তিনি ৩৭টি গ্রন্থ রচনা করেছেন। স্কুল, কলেজসহ তার ৮টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এমন একজন ব্যক্তি যিনি সামাজিকভাবে, রাষ্ট্রীয়ভাবে আমাদের বৌদ্ধদের প্রতিনিধিত্ব করেন এমন ব্যক্তিকে আমরা প্রাপ্য সম্মান দিতে পারিনি।

শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক পার্থ প্রতিম বড়ুয়া বলেন, আমরা অত্যন্ত মর্মাহত। একুশে পদকপ্রাপ্ত গুণী ব্যক্তির সঙ্গে এমন ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমরা এই ঘটনায় জড়িতদের অতি দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

আরও বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল আসাদ, সেকশন অফিসার নিবারণ বড়ুয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহসভাপতি মনিরুল ইসলাম রাশেল, আবরার শাহরিয়ার ও মিজান শেখ। সাবেক উপমানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক এস এম কাইসার, বিশ্ববিদ্যালয়ের বৌদ্ধ ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নবোদয় চাকমা ও সহসাধারণ সম্পাদক সৌরজিত বড়ুয়া প্রমুখ।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

সীবলী কো-অপারেটিভ সোসাইটি’র শুভ উদ্ভোধন

অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষুকে হেনস্থার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

আপডেট সময় ০৭:১৫:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) পালি বিভাগের অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষুকে হেনস্থার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (১৩ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। তাদের কর্মসূচিতে একাত্মতা পোষণ করেন বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার সমিতি, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, পালি বিভাগের শিক্ষার্থী ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় বৌদ্ধ ছাত্র পরিষদ।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক পার্থ প্রতিম বড়ুয়া। সঞ্চালনায় ছিলেন পালি বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী নিরোধানন্দ ভিক্ষু।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী অন্বেশ চাকমা বলেন, তিনি শিক্ষার জন্য কাজ করছেন এবং করে যাবেন। এমন ব্যক্তির সঙ্গে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।  ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। এ ধরনের সম্মানিত ব্যক্তিদের সঙ্গে যাতে এরকম গর্হিত কাজের পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে ব্যবস্থা নিতে হবে।

পালি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রিয়া বড়ুয়া বলেন, একজন বৌদ্ধ ভিক্ষুকে কীভাবে সম্মান করতে হয় সেটা আমরা নিশ্চয় জানি। তিনি শুধু ধর্মীয় গুরুই নয়, তার মতো গুণী মানুষ কমই জন্মায়। তিনি ৩৭টি গ্রন্থ রচনা করেছেন। স্কুল, কলেজসহ তার ৮টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এমন একজন ব্যক্তি যিনি সামাজিকভাবে, রাষ্ট্রীয়ভাবে আমাদের বৌদ্ধদের প্রতিনিধিত্ব করেন এমন ব্যক্তিকে আমরা প্রাপ্য সম্মান দিতে পারিনি।

শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক পার্থ প্রতিম বড়ুয়া বলেন, আমরা অত্যন্ত মর্মাহত। একুশে পদকপ্রাপ্ত গুণী ব্যক্তির সঙ্গে এমন ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমরা এই ঘটনায় জড়িতদের অতি দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

আরও বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল আসাদ, সেকশন অফিসার নিবারণ বড়ুয়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহসভাপতি মনিরুল ইসলাম রাশেল, আবরার শাহরিয়ার ও মিজান শেখ। সাবেক উপমানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক এস এম কাইসার, বিশ্ববিদ্যালয়ের বৌদ্ধ ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নবোদয় চাকমা ও সহসাধারণ সম্পাদক সৌরজিত বড়ুয়া প্রমুখ।