০৬:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অকালে চলে গেলেন মানবতার ফেরিওয়ালা তাপস বড়ুয়া

  • ডেস্ক রিপোর্ট :
  • আপডেট সময় ০১:২২:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩
  • ১০০৬ বার পড়া হয়েছে

‘সদা হাস্যোজ্জ্বল মানবিক তাপস। বাল্যকাল থেকেই  মানুষের বিপদে ছুটে যাওয়া। চট্টগ্রামে অসহায় রোগীদের জরুরি প্রয়োজনে রক্তের ব্যবস্থা করতে অবিরাম ছুটে চলা। সবার বিপদে ছুটে যাওয়া তাপস  এখন নিজেই চলে গেছেন পরপারে। সকলের ভালোবাসাকে উপেক্ষা করে আজ বুধবার ৫ এপ্রিল সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে চট্টগ্রাম জেনারেল  হাসপাতালে অনন্তলোকে পাড়ি জমিয়েছেন। (অনিচ্চা বত সাংখারা……)

জানা যায়, গত ১ এপ্রিল শনিবার  রাত ১০টার দিকে মিরসরাই থেকে চট্টগ্রাম ফেরার পথে ফৌজদারহাট এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে গুরুতর আহত হয় হুইসেল ব্লাডলিংকের প্রতিষ্ঠাতা ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠক তাপস বড়ুয়া (৩২)মাথায় মারাত্মকভাবে আঘাত পান এবং মেরুদণ্ডসহ পাঁজরের হাড় ভেঙে  যায় । তিনি  চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

চিকিৎসক জানান, দুর্ঘটনায় মাথায় প্রচণ্ড আঘাত লাগার কারণে তাপস বড়ুয়ার মাথার খুলি ভেঙে গেছে। ছিদ্র হয়ে গেছে কপাল, ভেঙে গেছে মেরুদণ্ড ও বুকের বিউটিবোন। তার মাথায় একটি অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করা হয়েছে। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মাথার ভেতর জমাট বেঁধে থাকা রক্ত বের করে নেওয়া হয়। অস্ত্রোপচারের পর তাকে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন ।

তাপস বড়ুয়া চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার শীলঘাটা গ্রামের আদিত্য বড়ুয়া ও টকি বড়ুয়ার একমাত্র ছেলে। এই দম্পতির পাঁচ সন্তানের মধ্যে তিনি চতুর্থ।

এদিকে সকল আনুষ্ঠিকতা শেষে কিছুক্ষনের জন্য নন্দনকাননস্থ চট্টগ্রাম বৌদ্ধ বিহারে রাখা হয়।

আগামীকাল তার নিজ গ্রাম  সাতকানিয়া উপজেলার পুরানগড় শীলঘাটা গ্রামে অন্তেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

শেয়ার করুন
আরও সংবাদ দেখুন

বুদ্ধ পূর্ণিমায় কোন ধরনের নিরাপত্তা ঝুঁকি নেই : ডিএমপি কমিশনার

অকালে চলে গেলেন মানবতার ফেরিওয়ালা তাপস বড়ুয়া

আপডেট সময় ০১:২২:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩

‘সদা হাস্যোজ্জ্বল মানবিক তাপস। বাল্যকাল থেকেই  মানুষের বিপদে ছুটে যাওয়া। চট্টগ্রামে অসহায় রোগীদের জরুরি প্রয়োজনে রক্তের ব্যবস্থা করতে অবিরাম ছুটে চলা। সবার বিপদে ছুটে যাওয়া তাপস  এখন নিজেই চলে গেছেন পরপারে। সকলের ভালোবাসাকে উপেক্ষা করে আজ বুধবার ৫ এপ্রিল সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে চট্টগ্রাম জেনারেল  হাসপাতালে অনন্তলোকে পাড়ি জমিয়েছেন। (অনিচ্চা বত সাংখারা……)

জানা যায়, গত ১ এপ্রিল শনিবার  রাত ১০টার দিকে মিরসরাই থেকে চট্টগ্রাম ফেরার পথে ফৌজদারহাট এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে গুরুতর আহত হয় হুইসেল ব্লাডলিংকের প্রতিষ্ঠাতা ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠক তাপস বড়ুয়া (৩২)মাথায় মারাত্মকভাবে আঘাত পান এবং মেরুদণ্ডসহ পাঁজরের হাড় ভেঙে  যায় । তিনি  চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।

চিকিৎসক জানান, দুর্ঘটনায় মাথায় প্রচণ্ড আঘাত লাগার কারণে তাপস বড়ুয়ার মাথার খুলি ভেঙে গেছে। ছিদ্র হয়ে গেছে কপাল, ভেঙে গেছে মেরুদণ্ড ও বুকের বিউটিবোন। তার মাথায় একটি অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করা হয়েছে। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মাথার ভেতর জমাট বেঁধে থাকা রক্ত বের করে নেওয়া হয়। অস্ত্রোপচারের পর তাকে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন ।

তাপস বড়ুয়া চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার শীলঘাটা গ্রামের আদিত্য বড়ুয়া ও টকি বড়ুয়ার একমাত্র ছেলে। এই দম্পতির পাঁচ সন্তানের মধ্যে তিনি চতুর্থ।

এদিকে সকল আনুষ্ঠিকতা শেষে কিছুক্ষনের জন্য নন্দনকাননস্থ চট্টগ্রাম বৌদ্ধ বিহারে রাখা হয়।

আগামীকাল তার নিজ গ্রাম  সাতকানিয়া উপজেলার পুরানগড় শীলঘাটা গ্রামে অন্তেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হবে।